সাকিব আল হাসান মেয়ের জন্য আইসক্রিম কিনতে যাবেন কিভাবে?

ক্রিকেট তারকা সাকিব আল হাসানের মেয়ে আইসক্রিম খেতে যেতে চায়, কিন্তু দেখা দিয়েছে একটি ছোট সমস্যা – তাদের গাড়িটি বাসার বাইরে। ফলে সাকিব আল হাসান ফেসবুকে লিখলেন: ‘ড্রাইভার গিয়েছে শিশিরকে ড্রপ করতে। কিন্তু আলাইনা চায় আইসক্রিম খেতে যেতে! কিভাবে যাই?’

পোস্টের সাথে আছে স্মার্টফোন হাতে সোফায় বসা সাকিব আল হাসানের একটি ছবি। জবাবে আসতে লাগলো মন্তব্য। একটি দুটি নয়, শ’য়ে শ’য়ে, হাজারে হাজারে। কিছু সময় আগে পর্যন্ত মন্তব্য পড়েছে ১৪ হাজারের বেশি। পোস্টটি লাইক পেয়েছে ১ লক্ষ ৩৬ হাজারের বেশি, আর শেয়ার হয়েছে ৩ হাজার ৬শ’রও বেশি বার।

মন্তব্যকারীদের মধ্যে আছেন সাকিব আল হাসানের সাধারণ ভক্ত থেকে শুরু করে দৃশ্যত: নানা রকম সেবা-প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানও। সবাই এই ক্রিকেটারের সমস্যার ব্যাপারে নানা মন্তব্য করছেন, বিচিত্র সব সমাধান-পরামর্শও দিচ্ছেন।

রাইড শেয়ারিং সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান পাঠাও লিখেছে: ‘আপনার মতো অলরাউন্ডারের দরকার একটি অলরাউন্ডার এ্যাপ, এবং আমাদের আছে খাদ্য, গাড়ি, বাইক পার্সেল এবং অন্য বহু কিছু – আর তার সবই আছে এক প্ল্যাটফর্মে।’ এর আগে আরেক রাইড শেয়ারিং সার্ভিস উবারও জানিয়ে দিয়েছে সাহায্য করার জন্য তারা প্রস্তুত।

উল্লাস মজুমদার নামে একজন এই অভিনব প্রচারমূলক মন্তব্যের জবাবে তির্যক ভাষায় লিখেছেন: ‘মামারা চিপা দিয়ে ব্যবসাটা কইরা ফেললা।’

বেস্ট ইলেকট্রনিকস নামের একটি প্রতিষ্ঠান লিখেছে: ‘সাকিব আল হাসান, দয়া করে ঘরে বিশ্রাম করুন, হিটাচি রেফ্রিজারেটর অর্ডার করুন, আমরা আলাইনার জন্য কমপ্লিমেন্টারি আইসক্রিম পাঠিয়ে দেবো।’ এর জবাবে আতহার ওয়াদুদ ফিদা নামে একজন পাল্টা মন্তব্য করেছেন: ‘৫৫ টাকার আইসক্রিমের জন্য ২৫ হাজার টাকার ফ্রিজ কিনতে হবে!’ এর নিচে ইমতিয়াজ আহমেদ খানের মন্তব্য: ‘মফিজ কে বললাম “মফিজ একটা আইসক্রিম নিয়ে আসো” – মফিজ একটি ফ্রিজ নিয়ে আসলো।’

জাগো এফএম ৯৪.৪ নামে এক ইউজার লিখেছেন : আপনি উবারে কল করেন আর গাড়িতে উঠে ড্রাইভারকে বলে জাগে এফএম ৯৪.৪ টিউন করতে… অন এয়ারে আরজে অলরেডি আলাইনার জন্য আইসক্রিম অর্ডার করে গান গাইতেছে। মন্তব্যটি হাসিমুখের ইমোজি সমৃদ্ধ। শুধু এ মন্তব্যটিই লাইক পেয়েছে ৭ হাজারের বেশি।

আজমল তানজিম শাকির নামে একজন মন্তব্য করেছেন: ‘শিশির বাইরে ড্রাইভারও বাইরে। যে ছবি তুলে দিসে তাকে বলে আইসক্রিম আনায়ে নেন। রাশাদত রহমান নামে একজন প্রস্তাব করেছেন, ক্রিকেট তারকাকে সহায়তার জন্য তিনি তার নিজের গাড়িটি নিয়ে আসতে পারেন।

‘আমি আমার গাড়ি নিয়া আমু? আপনার মত দামী গাড়ি না হইলেও এসি ঠিক আছে, আর বামডিগিডিগিবাম গানের ডিভিডি আছে’ – লেখেন তিনি।

এমবিএম মুনশি বাংলাদেশ লিমিটেড নামে এক ইউজারের মন্তব্য : আমরা ক্লিনিং সেবা দেই, আলাইনা আইস ক্রীম খাওয়ার পর মেঝে নোংরা হলে আমরা আছি আমাদের এক্সপার্ট নিয়ে, যে কোনো সময় কল করুন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন সফরকারী জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে টেস্ট খেলছে, তবে আঙুলের চোটের কারণে এখন দলের বাইরে আছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। স্ত্রী-সন্তান নিয়ে ঘরেই কাটছে তার সময়।

সাকিব আল হাসানের মেয়েকে আইসক্রিম খাওয়ানোর সমাধান বাতলে দিতে পিছিয়ে নেই রিয়েল এস্টেট কোম্পানিও । বিপ্রপার্টি-র মন্তব্য: সাকিব আল হাসান মনে হচ্ছে আপনার এমন একটি এলাকায় বাড়ির প্রয়োজন যেখানে একটি আইসক্রিম কেনার জন্য গাড়ি ব্যবহার করতে হবে না। আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন – আপনারা জন্য এরকম হাজার হাজার বিকল্প আমাদের কাছে তৈরি আছে।

হাবিবা সুলতানা নামে একজন মন্তব্য করেছেন: “বাচ্চা মানুষ এই সকাল বেলায় আইসক্রিম! ভাত খাওয়ান কাজে দেবে।” একই রকম মন্তব্য অরোরা রহমান নিশির: “ঠান্ডার দিনে কিয়ের আইস্ক্রিম খাইবো! পুলাপানের সব কথা শুনতে নাই । ”

আর এই সুযোগে বেশ কিছু ডেন্টাল ক্লিনিকও তাদের ব্যবসার প্রচারণা করে নিয়েছে। আইসক্রিম খেয়ে আলাইনার দাঁতের সমস্যা হলে তাদের ক্লিনিকে নিয়ে আসার পরামর্শ দিয়েছে তারা।

এসব বিচিত্র পোস্ট দেখে বহু লোক হো হো করে অট্টহাস্যরত মুখের ইমোজি মন্তব্যে জুড়ে দিয়েছেন।

তবে একজন মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন রিপন, তার অনুভুতি প্রকাশে কবিতার আশ্রয় নিয়েছেন। তার মন্তব্য – ‘আমি চিৎকার করিয়া হাসিতে চাহিয়া করিতে পারিনি চিৎকার। লুঙ্গির গিট্টু খুলিয়া যাওয়ায় নিজেকে দিয়াছি ধিক্কার’

#from BBC বাংলা

Check Also

PaTuAkHali Ryderz

পটুয়াখালী রাইডার্সের ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর জমকালো উদযাপন

“Think Safe Ride Safe Be Safe” এই স্লোগান নিয়ে দেশের দক্ষিন অঞ্চলের সর্ববৃহৎ বাইক স্যান্ড …

Leave a Reply