দয়া করে যেখানে সেখানে পোস্টার লাগাবেন না!

যেখানে সেখানে পোস্টার লাগালে পরিবেশের সৌন্দর্য নষ্ট হয়। সাধারন মানুষের বিরক্তির কারন হয়। আমরা প্রায়ই দেখি যে বিনা অনুমতিতে অনেকের বাড়ির দেয়ালে, দোকানের শাটারে, গাড়ির গায়ে, পোস্টার বা লিফলেট লাগানো হয়। এমনকি বাদ দেয়া হয়না মসজিদ, মন্দির, স্মৃতিসৌধ। অনেক সময় ব্যক্তিমালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান, বাসা-বাড়ি পোস্টার বা লিফলেটে ছেয়ে ফেলা হয়। অনেকে বাধ্য হয়ে লিখে রাখেন “এখানে পোস্টার লাগাবেন না”। অথচ অনেকে সেখানেও পোস্টার লাগায়। আপনি কি জানেন যে সেগুলো দেখতে অনেক বিশ্রী দেখায়! আপনার সেই পোস্টার বা লিফলেট লাগানোর উদ্দেশ্য ছিলো প্রচারনা বা জনপ্রিয়তা পাওয়া। কিন্তু যেখানে সেখানে পোস্টার লাগানোর কারনে আপনার সেই প্রচারনা বা জনপ্রিয়তার আরো ক্ষতি হলো। কারন সাধারন মানুষ এই বিষয়টা খারাপ চোখে দেখে।

যেখানে সেখানে পোস্টার লাগাবেন না

আজ চলার পথে চোখ পড়লো মিরপুর-১ মাজার রোডের, মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধের প্রবেশ মুখের স্তম্ভে। কয়েক মাস আগেও যেই স্তম্ভ ছিল সম্পুর্ন পরিষ্কার। অথচ আজ দেখা গেলো সেটা বিভিন্ন রাজনৈতিক পোস্টারে পরিপূর্ন। আমরা কি রাজনীতিবিদ হিসেবে এতটাই নিচ মানসিকতার? হয়তো বা না। আবার অনেকে বলবেন এই পোস্টার তো আমি নিজে লাগাই নি! মানলাম আপনি লাগান নি। কিন্তু সেই পোস্টার তো আপানার রাজনৈতিক প্রচারনার জন্যই কেউ লাগিয়েছে। যার কারনে আপনার লাভের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হল বলে আমারা মনে করি।

তাই আমাদের অনুরোধ, ইচ্ছা মতো যেখানে সেখানে পোস্টার না লাগিয়ে সমাজ ও পরিবেশের সৌন্দর্য বর্ধনে কাজ করুন। অপ্রয়োজনীয় লিফলেট, পোস্টার, বিলবোর্ড সরিয়ে ফেলুন। বিভিন্ন স্থানে মেয়াদ উত্তীর্ণ ব্যক্তিগত, রাজনৈতিক, বাণিজ্যিক পোস্টার, ব্যানার নিজ দায়িত্বে নামিয়ে ফেলুন।

Check Also

খাসির গোস্তের কেজি ৮০০ টাকা আর পানির কেজিও ৮০০ টাকা

খাসির মাংসের কেজি ৮০০ টাকা আর পানির কেজিও ৮০০ টাকা ! ভিডিও

আমরা হয়তো খাসির গোস্ত ৮০০ টাকা কেজি ক্রয় করতে অভ্যস্ত। কিন্তু কখনো কি পানির কেজিও …

Leave a Reply