কাশ্মীরে মার্কিন স্নাইপার রাইফেল উদ্ধার ভারতের সেনাবাহিনীর

কাশ্মীরের বিদ্রোহীদের কাছ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নির্মিত এম-২৪ স্নাইপার রাইফেলের একটি বড় ভান্ডার জব্দ করেছে ভারতের সেনাবাহিনী। এই অস্ত্র ভান্ডারে দুরবিন ও ভূমিমাইনও পাওয়া গেছে।

গতকাল শুক্রবার অমরনাথ যাত্রাপথ থেকে স্নাইপারসহ বিপুল পরিমাণ বোমা উদ্ধার করা হয়। এরপরই অমরনাথ তীর্থযাত্রীদের অবিলম্বে কাশ্মীর উপত্যকা ছেড়ে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।

কাশ্মীরে মার্কিন স্নাইপার

ইন্ডিয়া টুডের খবরে বলা হয়েছে, গতকাল শুক্রবার অমরনাথ যাত্রাপথ থেকে বিপুল পরিমাণ বোমা, একটি ল্যান্ডমাইন এবং একটি টেলিস্কোপিক স্নাইপার রাইফেল উদ্ধার করেছেন ভারতের সেনাসদস্যরা। এরপরই নিরাপত্তার কারণে অমরনাথ তীর্থযাত্রীদের অবিলম্বে উপত্যকা ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জম্মু-কাশ্মীর সরকার। কাশ্মীর উপত্যকায় বার্ষিক তীর্থযাত্রীদের ওপর বিদ্রোহীরা হামলা চালাতেই এসব অস্ত্র মজুত করা হয়েছিল বলে ধারণা ভারতের সেনাবাহিনীর।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল কে জে এস ডিল্লান অস্ত্র উদ্ধার অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি দাবি করেন, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী কাশ্মীরের শান্তি নষ্টের চেষ্টা করছে। সেখানে সন্ত্রাসীদের পাকিস্তান ও তাদের সেনাবাহিনী সমর্থন দিচ্ছে বলে আমাদের হাতে গোয়েন্দা তথ্য ছিল। তারা অমরনাথ যাত্রায় ব্যাঘাত ঘটাতে চেয়েছিল।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল ডিল্লান বলেন, আইইডি উদ্ধার করা হয়েছে। অমরনাথ যাত্রার রুট থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় তদন্ত এখনো চলছে। এখানকার একটি অস্ত্র হচ্ছে এম-২৪। তল্লাশিতে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ভূমিমাইনও উদ্ধার করা হয়েছে।

অমরনাথ যাত্রা বানচাল করতে চাইছে পাকিস্তান ও জঙ্গিরা
ভারতের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, বড়সড় জঙ্গি হামলার ছক ভেস্তে দিলেন তাদের সেনাসদস্যরা। শুক্রবার অমরনাথ যাত্রাপথ থেকে বোমা ও স্নাইপার রাইফেল উদ্ধার করেছেন তাঁরা। এরপরই নিরাপত্তার কারণে অমরনাথ তীর্থযাত্রীদের অবিলম্বে উপত্যকা ছেড়ে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেয় জম্মু-কাশ্মীর সরকার। পর্যটকদেরও এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়েছে। পাকিস্তানের মদদপুষ্ট জঙ্গিরা উপত্যকায় বড় ধরনের হামলার ছক কষেছে। সে কারণেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এমন নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। জম্মু-কাশ্মীর প্রশাসনের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গোয়েন্দা সূত্রে জানা গেছে, বড় ধরনের হামলার ছক কষছে জঙ্গিরা।

মূলত অমরনাথ তীর্থযাত্রীরাই তাদের নিশানায় রয়েছেন। উপত্যকায় এই মুহূর্তে যা পরিস্থিতি, তাতে অমরনাথ যাত্রী এবং পর্যটকদের নিরাপত্তাকেই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। তাই যত শিগগির সম্ভব, ছুটি কাটছাঁট করে, নিরাপদে ফিরে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

কে জে এস ডিল্লান জানান, কয়েক দিন ধরেই গোয়েন্দা সূত্রে খবর পাওয়া যাচ্ছিল অমরনাথ যাত্রাপথে পাকিস্তান মদদপুষ্ট জঙ্গিরা হামলা চালাতে পারে। সেই বার্তা পাওয়ার পরই পুরো অমরনাথ যাত্রাপথ জুড়ে তল্লাশি অভিযান চালানো হয়। সে সময়েই বোমা, ল্যান্ডমাইন ও এম-২৪ রাইফেল উদ্ধার করা হয়। উদ্ধার হওয়া ল্যান্ডমাইনটির গায়ে যে তথ্য রয়েছে তা থেকে জানা গেছে সেটি পাকিস্তানের সামরিক কারখানায় তৈরি। আর রাইফেলটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি।

Check Also

ফেসবুকে বা মোবাইলে হয়রানির শিকার

ফেসবুকে বা মোবাইলে হয়রানির শিকার হলে কী করবেন

ফেসবুকে বা মোবাইলে হয়রানির শিকার হলে কী করবেন !! বাংলাদেশ পুলিশ PHQ MEDIA, 24 OCT/2018 …